রবিবার, ১২ Jul ২০২০, ০২:০৯ পূর্বাহ্ন

ঢাকা ও কলকাতার গুরুত্বপূর্ণ দৈনিকগুলোর খবরের শিরোনাম

বাংলাদেশের শিরোনাম:

  • দেশে করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৫, সর্বমোট ৫৫৯ -দৈনিক যুগান্তর
  • শর্তসাপেক্ষে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন অফিস ও গণপরিবহন চালু -দৈনিক ইত্তেফাক
  • তাহলে কি জীবন তুচ্ছ হয়ে গেল?–দৈনিক মানবজমিন
  • আমরা কি যুক্তরাষ্ট্রকেই অনুসরণ করছি -দৈনিক প্রথম আলো
  • সরকারি ত্রাণ দেওয়া হয়েছে ৬ কোটির বেশি মানুষকে’-কালের কণ্ঠ
  • সীমান্ত খুলে দিচ্ছে ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ -বাংলাদেশ প্রতিদিন

ভারতের শিরোনাম:    

  • দেশে মৃত ৪৫৩১, করোনায় চার রাজ্যেই সংক্রমিত লক্ষাধিক -দৈনিক আজকাল
  • এক মাসেই দেশে কাজ হারিয়েছেন ১২ কোটি! -দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা
  • পরিযায়ীদের কান্না গোটা দেশ দেখতে পায়, বিজেপি পায় না’তোপ সোনিয়ার-দৈনিক সংবাদ প্রতিদিন

বিশ্ব করোনা পরিস্থিতির খবর:  দৈনিক যুগান্তরের খবর-বিশ্বের দেশে দেশে করোনায় বেড়েই চলেছে মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা। করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে মৃত্যুর সংখ্যা ১ লাখ ২ হাজার ১১৪ জন। করোনায় এখন পর্যন্ত বিশ্বে মৃত্যু ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৮০৭ জন এবং আক্রান্তও ছাড়ালো ৫৮ লাখ। হাইড্রোক্সিক্লোরোকুইন নিষিদ্ধ করছে ইউরোপের ৩ দেশ। ইত্তেফাক করোনা সম্পর্কে এক খবরে লিখেছে, ইন্দোনেশিয়ার সুরক্ষা মন্ত্রী মোহাম্মদ মাহফুদ এমডি বলেছেন, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস আপনার স্ত্রীর মতো; এটিকে নিয়ন্ত্রণ করতে চাইলেও পারা যাবে না।

সীমান্ত খুলে দিচ্ছে ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ-দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের এ খবরে লেখা হয়েছে, করোনা পরিস্থিতির কিছুটা  উন্নতি হওয়ায় ইতোমধ্যে লুক্সেমবার্গ সীমান্তে কড়াকড়ি কিছুটা শিথিল করেছে জার্মানি। ডেনমার্ক, হাঙ্গেরিসহ আরো কয়েকটি দেশ সীমান্ত খুলে দেয়ার পথে এগোচ্ছে। এদিকে দৈনিকটির অন্য এক খবরে লেখা হয়েছে, করোনায় ব্রিটেনে মৃতের সংখ্যা বৃদ্ধি। গত ২৪ ঘন্টায় ৪১২ জন মারা গেছে।

বাংলাদেশের করোনা আপডেট : 

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৫৫৯ জন। আর নতুন করে দুই হাজার ২৯ জন এ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন। এ পর্যন্ত সবমিলিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল চল্লিশ হাজার ৩২১ জনে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে দুই লাখ ৭৫ হাজার ৭৭৬টি। দৈনিক ইত্তেফাকের খবরে লেখা হয়েছে, শর্তসাপেক্ষে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন অফিস ও গণপরিবহন চালুর প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। দৈনিক মানজমিনের খবরে লেখা হয়েছে, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, গণপরিবহন চালুর বিষয়ে নেয়া সিদ্ধান্ত ইতিবাচক। অন্যদিকে বিএনপি নেতা রহুল কবির রিজভী বলেছেন, ছুটি না বাড়ানো সরকারের সবচেয়ে বড় আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত।

দেশে প্রতি ৬ তরুণে একজনের বেশি কাজ হারিয়েছেন, বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তরুণীরা-দৈনিক মানবজমিনের এ প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) মনে করে, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে বাংলাদেশে প্রতি ৬ জন তরুণের মধ্যে ১ জন কাজ হারিয়েছেন৷ আবার যাদের কাজ রয়েছে তাদের ২৩ শতাংশের কর্মঘণ্টা কমে এসেছে। শ্রমবাজারের ওপর করোনা ভাইরাসের মহামারির প্রভাব নিয়ে সাম্প্রতিক বিশ্লেষণে তরুণ কর্মজীবীদের বিষয়ে উদ্বেগজনক এই চিত্র প্রকাশ করেছে আইএলও। চলতি বছর ফেব্রুয়ারির পর থেকে চালানো এক সমীক্ষার ভিত্তিতে তারা এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আইএলও মনিটর বলছে, কভিড-১৯ অ্যান্ড দ্য ওয়ার্ল্ড অব ওয়ার্ক’ এর চতুর্থ সংস্করণের তথ্য অনুযায়ী, মহামারি দুনিয়ার তরুণদের প্রতি বৈষম্যমূলকভাবে আঘাত হানছে। ফেব্রুয়ারি মাস থেকেই তরুণদের মধ্যে বেকারত্ব ধারাবাহিকভাবে ও দ্রুতগতিতে বাড়ছে, আর এক্ষেত্রে তরুণদের চেয়ে তরুণীরা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। 

আমরা কি যুক্তরাষ্ট্রকেই অনুসরণ করছি-দৈনিক প্রথম আলো

বিস্তারিত প্রতিবেদনে লেখা হয়েছে, বৈশ্বিক মহামারিতে আক্রান্ত হওয়ার কথা জানার প্রায় ১১ সপ্তাহ পর একজন শীর্ষস্থানীয় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বলেছেন, দেশে করোনার ঝুঁকি বেড়ে গেছে। গত ২৪ মে কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় সমন্বয় কমিটির উপদেষ্টা অধ্যাপক এ বি এম আবদুল্লাহ দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনকে এ কথা জানিয়েছেন। ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে গ্রামের বাড়ি যাওয়ার অনুমতি সম্পর্কে তিনি বলেছেন, ‘ঘোষণাটি সম্পূর্ণভাবে সাংঘর্ষিক হয়েছে।’ ‘সরকারের কথা ও কাজের মধ্যে মিল থাকছে না’ বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন। তাঁর মতে, আগামী পাঁচ থেকে সাত দিনের মধ্যে দেশে করোনার ঝুঁকি আরও বাড়বে। প্রয়োজনে সরকারকে কারফিউ দিতে হবে বলেও মনে করছেন তিনি। অন্য কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে ভাইরোলোজিস্ট অধ্যাপক নজরুল ইসলাম এবং এপিডেমিওলজিস্ট অধ্যাপক শহীদুল্লাহও ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে একই ধরনের আশঙ্কার কথা জানিয়েছেন। তবে, কারফিউ জারির মতো জল্পনার অবসান ঘটিয়ে সীমিত আকারে গণপরিবহন চালুসহ অর্থনীতি সচল করার দিন-তারিখ ঘোষিত হয়েছে বুধবার।

পরিস্থিতি স্থিতিশীল, আলোচনায় সমাধান সম্ভব, লাদাখ নিয়ে সুর নরম চিনের-দৈনিক আনন্দবাজার পত্রিকা

গালওয়ান উপত্যকায় সেনা মোতায়েন নিয়ে বুধবারই কিছুটা নমনীয় অবস্থান নিয়েছিল চিন। তারই প্রতিধ্বনি নয়াদিল্লিতে নিযুক্ত চিনা রাষ্ট্রদূতের গলাতেও। বুধবার চিনা রাষ্ট্রদূত সুন ওয়েডং সমঝোতার বার্তা দিয়ে বলেছেন, ভারত-চিন একে অন্যের পক্ষে বিপজ্জনক নয়। দুই দেশের মধ্যে মতবিরোধ কখনওই এমন পর্যায়ে যাবে না যে, তা দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে। অন্যদিকে বরাবরের মতোই চিনের পক্ষ নিয়ে ভারত সরকারকে আক্রমণ করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা (লাইন অব অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল বা এলএসি) বরাবর আচমকাই চিনা সেনার তৎপরতা বেড়ে যাওয়ার পর থেকেই নয়াদিল্লি-বেজিং সম্পর্ক উত্তপ্ত। তবে দৈনিকটির অন্য এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চিনের সঙ্গে যুদ্ধ-যুদ্ধ খেলাটা বেশি প্রয়োজন মোদীর, এমন মত বিশেষজ্ঞদের।

২০ কেজি আইডি–বোঝাই গাড়ি আটক, ২০১৯–র হামলার পুনরাবৃত্তি এড়াল পুলওয়ামা-দৈনিক আজকালের এ শিরোনামের খবরে লেখা হয়েছে, সেই পুলওয়ামায় ২০ কেজির বেশি আইডি–বোঝাই গাড়ি থামিয়ে ২০১৯–এর মতো হামলার পুনরাবৃত্তি এড়াল নিরাপত্তা বাহিনী। বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। আজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে জম্মু–কাশ্মীরের আইজি বিজয় কুমার জানালেন, পুলওয়ামায় গাড়িবোঝাই আইইডি দিয়ে বড় নাশকতার মূল ছক ছিল জৈশের। আর তাদের সহায়ক ছিল হিজবুল মুজাহিদিন। আইজি বলেছেন, এই দুই পাক জঙ্গি গোষ্ঠীদের কাছ থেকে হামলার আগাম খবর গোয়েন্দা সূত্রে পেয়েই তাঁরা তৎপর ছিলেন।

সৌজন্যে: রেডিও তেহরান বাংলা

শেয়ার করুন...




© All rights reserved
Design & Developed BY ThemesBazar.Com