বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন

লাবণ্য-এর দুটি কবিতা

লাবণ্য-এর দুটি কবিতা

“প্রিয়”

হঠাৎ কি হলো বলোতো,
অবেলা এক প্রান্তরে নিশীথে, নিভৃতে কখন যে তোমায় ভালোবেসেছি,,,

এক টুকরো জ্যোৎস্নার আলোকে,
নিরাকার,নিশ্রার্ন্ত,অবিরত তোমায় ধ্যান করেছি;

তোমাকে রচিয়াছি প্রিয়,
কল্পনার পুকুরে সাঁতরে, হৃদয়ের গভীর গঞ্জনায়,
অজস্র জনম ধরে ভালোবাসিয়াছি, কিন্তু পৌঁছাতে পারিনি;

তুমি নেই বলে,

ভরপুর জ্যোৎস্নায় বেবাক স্বপ্নাহত হই,
তোমাকে না বলা কথা অব্যক্তই রয়ে যায়,
আমার শব্দাবলী ভালবাসা ও শঙ্কার মাঝে অণুরণন তোলে,
অব্যক্ত রয়ে যায় সময়হীনতায়;

           
“প্রতিশ্রুতি”

আমার একটি প্রতিশ্রুতি চাই,
প্রকৃতির পক্ষে; সমতার,ভালবাসার, বাঁচার অস্তিত্বকে রক্ষা করার।

সমস্ত লোভ, অহংকার, যুদ্ধ, দৌরাত্ব, দুরাচার, বিভৎসতা -নিস্তার দেওয়ার।

ইতিহাস অর্ধসত্য কামাচ্ছন্ন, মানুষ অবোধ জোনাকি;

এক অস্ফুট প্রাণ ক্লান্ত করে তুলেছে গোটা বিশ্ব;

সমস্ত আচ্ছন্ন সুর একটি ওঙ্কার তুলে-প্রকৃতিতে অবাধ বিচরণ- আজ সোনারুপি
পিতল মূর্তিমাত্ত;

চারদিকে বিকলাঙ্গ, বসন্তের অন্য সাড়া নেই,আকাশ নিরালম্ব,মানুষ অতলান্তিক, বিলীন বিশ্বাস, ঢের অন্ধকার- অলীক প্রয়াণ ;

ভোরের রাঙা সূর্য, হীরার স্ফুলিঙ্গ, অর্ধনারীশ্বরের ভয়াবহ রূপ;

খোপার ভিতরে চুল- নরদের বিধ্বংসী খেলা,,;

শেযার করুন...




© All rights reserved
Design & Developed BY ThemesBazar.Com
You cannot copy content of this page