১২ সেকেন্ড করার সুযোগও হাত ছাড়া হতে দেননি শ্রীলেখা

কলকাতার স্বল্পদৈর্ঘ ছবি ‘১২ সেকেন্ড’-এ অ’ভিনয় করেছেন টলিউডের জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র।

ছবিতে প’রকীয়ায় ম’’গ্ন ‘হতে দেখা যাব’ে শ্রীলেখাকে। যা জেনে ফেলেন তার স্বামী। এক সময় ভুল বুঝতে পেরে স্বামীর বুকে ফিরে আসেন শ্রীলেখা।

ছবিতে অ’ভিনয় প্র’স’ঙ্গে শ্রীলেখা বলেন, ‘শিলাজিতের স’ঙ্গে ফের জুটি বাঁধার সুযোগ। তার উপর আবার বেশ ভাল গল্প। এছাড়াও বরাবরই মনস্তত্ত্ব বড়ই প্রিয়।

এছাড়াও চরিতত্রে অনেক শেডও রয়েছে। তাই এই ছবিতে অ’ভিনয়ের সুযোগ হাতছাড়া করিনি।’ স্বল্পদৈর্ঘ এই ছবি নির্মাণ করেছেন অংশুমান বন্দ্যোপাধ্যায়। নাম- ‘১২ সেকেন্ড’। যেখানে শ্রীলেখা ও শিলাজিৎকে জুটি।

ওই শর্টফিল্মের প্রেক্ষাপটই একটি স্বপ্ন। সামান্য সময়ের মধ্যে শিলাজিৎ জানতে পারেন তার স্ত্রী সৃজিতার মন মজেছে প’রকীয়ায়। তিনি অন্য পু’রুষে আ’সক্ত।

স্ত্রী সৃজিতার চরিত্রেই দেখা গিয়েছে শ্রীলেখাকে। ছেলে আবার । কোকেন ছাড়া তার চলে না। মেয়ে একটি সম্পর্কে জড়িয়েছে। তার ভালবাসার মানুষের স’ঙ্গে বয়সের ব্যবধান অনেক। পাশাপাশি মেয়ের মনের মানুষ আবার বিবাহিত। সব মিলিয়ে যেন জীবনে

‘ঝড়’ বয়ে যায় শিলাজিতের। তবে সেই ‘ঝড়’ ত’ছনছ করতে পারেনি কিছুই। কারণ, যা ঘটেছে তা পুরোটাই স্বপ্ন ছিল। ভিন্নরকম গল্প। সবার ভালো লাগবে বলে আশা করছেন নির্মাতা।

মুম্বাই সংবাদমাধ্যমের খবর, ২০২২-এর ডিসেম্বর কিংবা ২০২৩-এর জানুয়ারিতেই সাত পাকে বাঁধা পড়ছেন ‘রালিয়া’। তবে ক্যাটরিনা, দীপিকা, প্রিয়াঙ্কাদের মতো মুম্বাই ছেড়ে অন্য কোথাও গিয়ে যে বিয়ে করবেন না তারা, তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে।

জানা গিয়েছে শুধু দূরে বিয়েই নয় প্রচুর খরচ করে বিলাসবহুল বিয়ে করতে রাজি নন আলিয়া আর রণবীর। বরং সাদামাঠা ঘরোয়া পরিবেশে বিয়েই তাদের পছন্দ। তাদের বিয়েতে যে পরিবারই গু’রুত্ব পাবে, তাও জানিয়েছেন তারা।

আলিয়ার বয়স্ক বাবা মহেশ ভাট আর রণবীরের কাকার পক্ষে অন্যত্র গিয়ে বিয়েতে শামিল হওয়া সম্ভব নয় বলেই আলিয়া-রণবীর নাকি এই সি’দ্ধান্ত নিয়েছেন। মুম্বাইয়ের এক সাত তারা হোটেলেই তাদের বিয়ে হবে।

২০১৮ সাল থেকে রণবীর কাপুর আর আলিয়া ভাটের সম্পর্ক। প্রেম নিয়ে প্রথম পর্যায়ে লুকোছাপা থাকলেও রণবীর এক সাক্ষাৎকারে স্বীকার করেছেন তার স’ঙ্গে আলিয়ার গভীর সম্পর্ক নিয়ে। দীপাবলিতে দু’জনকে একস’ঙ্গে সেজেগু’জে ছবি দিতেও দেখা গিয়েছিল।

বিয়ের ভিডিও ও ছবির স্বত্ব প্রায় ১০০ কোটি টাকায় বিক্রি করেছেন ভিক্যাট, ‘বিবাহিত’ তকমা’র স’ঙ্গে স’ঙ্গেই আকাশ ছুঁয়েছে জুটির বাজারদর। ঠিক যেমনটা হয়েছিল প্রিয়ঙ্কা চোপড়া-নিক জোনাস, দীপিকা পাড়ুকোন-রণবীর সিংহ, অনুষ্কা শর্মা-বিরাট কোহলীদের ক্ষেত্রে।

নিন্দকেরা বলছেন, শুধু বিয়েতে বাণিজ্য নয়, ইদানীং জীবনস’ঙ্গী বাছাইয়েও রীতিমতো হিসেব কষছেন তারকারা’। বিয়ের এই বাণিজ্যিকরণ থেকে নিজেদের হয়তো দূরে রাখতে চাইছেন রণবীর-আলিয়া।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *