মনে আছে ‘কোই মিল গ্যয়া’র ছোট্ট টিনাকে? এখন ডাকসাইটে সুন্দরী, আসল চেহারা দেখলে চোখ ফেরাতে পারবেন না

সালটা ছিলো 2000! সেই সময়ের জনপ্রিয় টিভি শো “শাকা লাকা বুম বুম” এর হাত ধরে শিশুশিল্পী হিসেবে নিজের ক্যারিয়ারের সূত্রপাত করেছিলেন এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী।

পরবর্তীতে “কারিশমা কা কারিশমা”,”সোন পারি”,”কিউকি সাস ভি কাভি বাহু থি”এর মত একাধিক জনপ্রিয় টেলিভিশন সোপে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে তাকে।

তবে সব থেকে বেশি 2003 সালের “কোই মিল গ্যয়া” মুভিতে হৃত্বিকের খুদে বন্ধুর চরিত্রে অভিনয় করে অফুরন্ত ভালোবাসা পেয়েছিলেন এই অভিনেত্রী।

এতক্ষণে নিশ্চয়ই বুঝে গিয়েছেন কার কথা হচ্ছে? হ্যা, দক্ষিণী সুপারস্টার হানসিকা মোটওয়ানিকে নিয়ে।2008 সালে বলিউডে মুক্তি পেয়েছিল হানসিকার ডেবিউ ফিল্ম “মানি হ্যায় তো হানি হে”!

যদিও দর্শকমহলে খুব একটা জায়গা করে নিতে পারেনি এই মুভি যার কারণে অভিনেত্রী বেছে নেন টলিউড ইন্ডাস্ট্রিকে এবং সেই থেকে বর্তমান কাল পর্যন্ত “অরু কাল অরু কানাদি”,”সিনঘাম”,”ভেলায়ুধাম” এর মত একাধিক জনপ্রিয় দক্ষিণী মুভিতে অভিনয় করে নিজেকে সুপারস্টারের পর্যায়ে নিয়ে গিয়েছে হানসিকা।

তবে “আবরা কে ডাবরা” ক্ষ্যাত সেই ছোট্ট মেয়েটি আর ছোট্টটি নেই। বর্তমানে তিনি হয়ে উঠেছেন একজন অন্যতম লাস্যময়ী অভিনেত্রী।

সামাজিক মাধ্যমে অত্যন্ত জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর সৌন্দর্য্যে রীতিমতো বোল্ড আউট আপামর দর্শকেরা। একজন দুর্দান্ত অভিনেতা হওয়ার পাশাপাশি দক্ষিনী ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম সুন্দরী এই অভিনেত্রী হিসেবে তিনি বিশেষিত।

আজকের দিনে 30তম বছরে পদার্পণ করলেন জনপ্রিয় এই সুন্দরী অভিনেত্রী আর পাঁচজন বর্তমান প্রজন্মের অভিনেত্রীদের মত সোশ্যাল মিডিয়াতে অত্যন্ত সক্রিয় হানসিকা নিত্যনতুন ছবি ও ভিডিও পোস্ট করে দর্শকদের সাথে ইন্টারেকশন বজায় রাখেন সবসময়। তবে বর্তমানের এই গ্ল্যামারাস চেহারার অভিনেত্রীর সাথে ছোট্ট সেই ক্ষুদে শিশু শিল্পীর মুখের আপনিও মিল খুঁজে পান? পেলে জানান কমেন্ট বক্সে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *