বুধবার, ০৫ অগাস্ট ২০২০, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন

কবিতাগুচ্ছ: মু‌হিব্বুল্লাহ আল মাহদী

কবিতাগুচ্ছ: মু‌হিব্বুল্লাহ আল মাহদী

কবিতাগুচ্ছ: মু‌হিব্বুল্লাহ আল মাহদী
কবিতাগুচ্ছ: মু‌হিব্বুল্লাহ আল মাহদী

লাল সবু‌জের কথা

লাল সবুজ এই পতাকা
হা‌তে নি‌য়ে ছুটব ব‌লে
অকাত‌রে জীবন দিল
বাংলা মা‌য়ের লা‌খো ছে‌লে।
‌নি‌জের বু‌কের রক্ত দি‌য়ে
আঁকলো পতাকা
ঐ সবুজ মা‌যে লাল বৃ‌ত্তে
তা‌দের রক্ত মাখা।
‌মো‌দের ত‌রে এমন ক‌রে
কেন রে‌খে গে‌লে ঋণ
‌মো‌দের দারা এ ঋণ শোধার
আসা বড় ক্ষিণ।
‌মোরা ছুট‌ছি শুধু স্বার্থ লা‌গি
ভা‌বিনা‌তো দে‌শের কথা
কথায় কথায় গ‌র্জে উঠি
রাখ‌বো দে‌শের স্বাধীনতা।
ই‌ন্ডিয়ার চ্যা‌নেল ছাড়া
দে‌খি না আর কিছু
‌নি‌জের দে‌শের বিষয় রে‌খে
ছু‌টি বি‌দেশী‌দের পিছু।
এমন ক‌রে দেশ প্রেম য‌দি
চল‌তে থা‌কে হায়
এই জাতি পরাধীন না হ‌য়ে
থাক‌বে না উপায়।

উড়ো মন

না‌চে‌রে মন তি‌রিং বি‌রিং গান শা‌লি‌কের মত
উ‌ড়ে চ‌লে দে‌শে দে‌শে ম‌নের ভাবনা গু‌লো যত।
এই চ‌লে যায় সাগর তী‌রে, এইতো নদীর কূ‌লে
ভীন গ্রহ‌তে যায়‌যে ছু‌টে মনটা দু‌লে দু‌লে।
আমার উড়াল ম‌নে শিকল বা‌ধে সাধ্য আছে কার?
চলব ছু‌টে পেছন ফে‌লে বাধার শত পাহাড়।
গাঙচি‌লের পাখায় ধ‌রে ছুট‌তে ম‌নে চায়
‌ কেন দো‌য়েল গু‌লো গা‌নের তা‌লে পুচ্ছ‌টি নাচায়?
প্রজাপ‌তির র‌ঙ্গিন ডানার ঝাপটা‌নো দে‌খে
‌ নিজ‌কে বানাই প্রজাপ‌তি রঙ্গীন স্বপন মে‌খে।
‌ কো‌কিল যখন ম‌নের সু‌খে ডাকে কুহু র‌বে
ভা‌বি তখন এমন তা‌নে গান গাই‌তে হ‌বে।
বাগা‌নে‌তে ফু‌টে থাকা ঝুম‌কো জবার ফুল
ম‌নের মাঝে কেমন যেন জাগায় হি‌ল্লোল।
আমার এমন উড়ো মনটা নি‌য়ে তাই
বড় বে‌শি ভাবনায় আছি ভাই।
‌ কেমন ক‌রে তা‌রে শিকল দি‌য়ে বাঁধি
নতুন নতুন নানান নেশায় ছুট‌তে সে চায় য‌দি

ফেসবুক সমাচার

ভো‌রের পা‌খির মত
ম‌নের কথা যত
গাই‌তে পা‌রিনা গা‌নের সু‌রে।
তাই‌তো যত কথা
ম‌নের সকল ব্যাথা
লি‌খে যাই ছন্দ ভ‌রে।
কলম য‌দিও থা‌কে
কাগজ না‌হি থা‌কে
কলম কা‌লি‌তে তাই হয়না লেখা।
বদলা‌নো এ জমানায়
বই কে পড়‌তে চায়?
তাই‌তো ফেসবু‌কে হয় সবার সা‌থে দেখা।
এখা‌নে সকাল রা‌তে
দেখা হয় সবার সা‌থে
শেয়ার হয় যত মতামত
‌কেউবা স্ব‌দেশী
কেউবা বি‌দেশী
সবার ভীন্ন ভীন্ন দলমত।
সবাই সবার কথা
ম‌নের সকল ব্যাথা
ব‌লে যায় খোলা ম‌নে।
জানাই নি‌জের কথা
শুন‌ছি প‌রের কথা
মতামত দেই আপন ম‌নে।

আমার ৮ম বিবাহ বার্ষিক

আটটি বছর এত ছোট হয়
বুঝিনি তো এর আগে
সকাল হতেই দুপুর গড়িয়ে রাত
দিন গুলো বেশ ছোট ছোট লাগে।
জীবনের চাকা বেশ দ্রুত ছুটে
কিসের যেন তাড়া,
এই গতিবেগ থামাবার নয়
এ যেন পাগলা ঘোড়া।
দেখে ক্যালেন্ডারের পাতা
আমিতো চমকে উঠি
পরিনয় ক্ষনে্র এমন হিসেব দেখে
তুমি হাসো মিটি মিটি।
ভাবো আটটি বছর কেমন করিয়া
করিলাম পার!
একটি দিনের তরে তুমি পাও নাই
একটু সুখের আধার।
তবুও বড় কষ্টে বড় ধৈর্যে
কাটায়েছো দিন গুলি।
তোমার এ ঋণ আমি
বল কেমন করিয়া ভূলি?
করি বিধাতার কাছে প্রার্থনা
ওগো দয়াময়
আমার পরান প্রিয়ার জীবন তুমি
কর সুখময়।
সম্পদ তুমি দিলে দিতে পারো
এ তোমার মেহেরবানী
তবে ভালবাসার অভাব দিওনা
দিওনা দুঃখ গ্লানি।

গোলক ধাঁধা

হাজার লো‌কের হাত তা‌লি‌তে
গলা কাঁপা‌নো কথার তু‌ড়ি‌তে
মঞ্চ কাঁপান নেতা।
কখ‌নো গ‌া‌লে হাত
কখ‌নো পা‌য়ে হাত
লক্ষ্য তাহার ভো‌টে জেতা।।
নেতা যেই প‌থে যায়
পু‌লি‌শের পাহারায়
জনতার পথ চলা বন্ধ।
ঘ‌টি বাটি নাই যার
ভো‌টে যেতা হ‌লে তার
ঘূ‌চে যায় জীব‌নের যত আছে মন্দ।।
এমন মায়াবী রো‌টে
তাই‌তো সবাই ছু‌টে
ফে‌লে দু‌নিয়ার আর সব কর্ম।
ভু‌লে যায় কি‌সে ন্যায়
কি‌সে হ‌বে অন্যায়
কি‌সের আবার দ্বীনধর্ম।।
এমন বেহাল দশা
কর য‌দি রুখার আশা
বড় বেহাল দশায় ফেঁসে যা‌বে ভাই।
তোমার না‌মে রট‌বে এমন রটনা
যা তোমার জ‌ন্মের আগের ঘটনা
তার রা‌য়ে হ‌বে জেল মু‌ক্তি তোমার নাই।।
পড়ালেখা ক‌রেছ
টু‌পি দা‌ড়ি রে‌খেছ
আবার ভাব‌ছো দে‌শের কথা?
তোমায় ডাক‌বে রাজাকার
ট্রাইবুনা‌লে হ‌বে তোমার বিচার
সব শেষ কি হ‌বে জা‌নে বিধাতা!!
তাই‌তো এমন দশায়
প‌ড়ে‌ছি গোলকধাঁধায়
এ জা‌তির মু‌ক্তি কেম‌নে হ‌বে?
এসো এক সা‌থে হা‌তে ধ‌রি
স‌বে কা‌জে নে‌মে প‌রি
হয়ত জা‌তির মু‌ক্তি মিল‌বে ত‌বে।।

শেয়ার করুন...




© All rights reserved
Design & Developed BY ThemesBazar.Com